শেষ বিকেলের এক পশলা রোদের মাঝে
ঠাঁই দাঁড়িয়ে থাকা আমি
নির্বিকার ভাবে তাকিয়ে আছি
পিছঢালা পথের দিকে মুখ করে তাকিয়ে
তুমি আসবে বলে।

কখনো না দেখা তোমায় চিনব কেমন করে
তা ভাবতে ভাবতেই চোখ আটকে গেলো পথ সম্মুখে!

সোনালি পাড়ের সাদা শাড়ি পড়া
কানে কাঁচের ঝুমকো,নাকে নথ,হাতে চুড়ি,পায়ে নুপুর
কোকড়াকেশি এক রমণী এগিয়ে আসছে পথ ধরে!

মনে হলো সময় থমকে আছে
আমি বিস্তীর্ণ এক মরুর মাঝে সবুজ দেখছি,
বোধ হলো এত সৌন্দর্য আমি দেখিনি পূর্বে
তাইতো হা করে তাকিয়ে থেকেছি।

কারো চুড়ির ঝুনঝুন আওয়াজে হুশ এলো
সামনে তাকিয়ে দেখি এক মুক্তো হাসি ঝরে পড়ছে
আর ফিসফিসিয়ে বলছে অল্পতেই হারিয়ে গেলে?
তোমায় তো সাদা পাঞ্জাবীতে বড্ড মানায়,তবে
প্লান করে এসেছো নাকি আমার সাথে মিলিয়ে পড়ার?

তার হাসি দেখতে দেখতে উত্তর দেওয়ার ভাষা হারিয়েছি
আমি নির্লিপ্ততায় চেয়েই আছি তার চাঁদখানি মুখপানে।

কি কবিসাহেব? চেয়েই থাকবা নাকি?
এত অল্প সাজেই ডুবে গেলা?

বিকেল শেষের পথে,সূর্য ডুবে চলেছে
চারপাশ স্তব্ধ হয়ে আসছে,সবাই আপন নীড়ে ফিরছে
আর আমরা?
মুচকি হেসে হেঁটে চলছি নতুন জীবনের পথে।

শেষ বিকেলে
২২.১১.২০২০
Mohammad Sakib



0 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *