ওহে মিজাসা,
দেখিনি তখন কোনো রুপ-রঙ তোমার
শুনিনি তখন কোনো কন্ঠস্বর তোমার,
কখনো ভেবে দেখিনি দেখিতে তোমায়
কখনো ব্যক্ত করিনি তোমায় পাওয়ার ব্যকুলতা কে!
তবু,তুমি শুনে গেলে,শুনতে পেলে
মনোভ্যান্তরে ব্যথিত দেহটার নিরবতা
মজে গিয়েছো অর্ন্ত-আত্মাটার বিগলিত বাণীতে!

ওহে মিজাসা,
বুঝেছি যখন,পেয়েছি তোমারে ঐ এক হতে
বিশ্বাস করো-
আমি হেসেছি-কেদেছি
যে হাসি কান্না ছড়িয়েছে আমার মুখে অনেক বিকেল পর!
দিবারাত্রী ভেবেছি তোমায় নিয়ে,শুধু তোমায় নিয়ে
ছিল না সেথায় অন্য কোনো সত্ত্বা,এখনো নেই
আছে শুধু এক নাম,মিজাসা!

মিজাসা,
আমি আসছি তোমায় নিয়ে
তোমারো পানে, পুনরায় ব্যক্ত করিতে
না বলা অনেক কথা যা প্রয়োজন ছিল বলার,
যা লিখা আছে ডায়েরীর প্রতিটি পাতায়
আজ শুধু তাকে জন্ম দিব কবিতার ভাষায়!

মিজাসা
২৭.০৩.২০২১